ইচ্ছে গাঁও – experience the Eco-organic tourism – Tuhina Paul

eco organic tourism

ইচ্ছে গাঁও

তুহিনা পাল

পাহাড়চূড়োর কোলে মেঘেদের আদরের গাঁও – ইচ্ছে গাঁও । এক পাহাড় থেকে পাহাড়ান্তরের পাকদন্ডী বেয়ে বেয়ে যখন আপনি পা রাখবেন ইচ্ছেগাঁওতে – মনে হবে এ এক স্বর্গরাজ্যই বা অথবা স্বর্গের মায়া জড়ানো ছোট্ট একটুকরো স্বপ্নভূমি । সিকিম আর পশ্চিমবঙ্গের সীমানা ঘেঁষে যেকোনো পাহাড়ের কোলেই এখন ছোট ছোট জনবসতি , যেখানে Home Stay (হোমস্টে)-র ব্যবস্থাপনা আমূল পরিবর্তন এনেছে পর্যটনের ধ্যানধারণায় । হিমালয়ের হিমেল পরশ আর সবুজ বনানীর ঘেরাটোপে সব জায়গাই নিজস্ব সম্পদে পরিপূর্ণ । আরও উৎসাহব্যঞ্জক হল , এখানকার কিছু ভূমিপুত্র নিজেদের উদ্যোগে গড়ে তুলেছেন চেইন ট্যুরিজম বিজনেস । আপনি যেকোনো একজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে আপনার যাত্রার দিনক্ষণ , সময়কাল , ট্রেক না গাড়ীতে ভ্রমণ , পাহাড়ে চড়া না ঘন জঙ্গল পেরনো – কোনটা আপনার ইচ্ছে , বলে দিলেই এরাই সর্বত্র থাকাখাওয়ার বন্দোবস্ত করে দেবেন । এমনকি এন জি পি স্টেশন থেকে পিক আপ করা থেকে পুরো ভ্রমণ শেষে আবার এন জে পি তে ট্রেনে তুলে দেওয়া – পুরোটাই থাকছে একটা প্যাকেজ ট্যুর-এ । হয়তো , কলকাতা বা অন্য শহরে বসে সেখানকার স্থানীয় ট্রাভেল এজেন্ট কে দিয়েও আপনি এ বন্দোবস্ত করতে পারেন । কিন্তু এখানকার স্থানীয় মানুষদের ব্যবস্থাপনায় আপনি যেমন পাবেন পাহাড়ী জনজাতির আদি অকৃত্রিম পরশমণির ছোঁয়া , তেমনি আপনার পকেটের ও হবে সাশ্রয় ।

এমনই এক ভূমিপুত্র ইচ্ছেগাঁও-এর ডি কে খাওয়াস । খাওয়াস পরিবারের ছোট ছেলেটি পারিবারিক চাষাবাদের পাশাপাশি স্বপ্ন দেখেন এখানকার পরিবেশের সঙ্গে বহির্জগতের মানুষের মেলবন্ধনের । প্রাণচঞ্চল মানুষটি তার অতিথিদের নিয়ে ঘুরে বেড়ান ইচ্ছেগাঁও-এর ছোট্ট সাজানো গ্রামটির আনাচে কানাচে । হাত ধরে নিয়ে যান গ্রাম ছাড়িয়ে কয়েক পা দূরের ইচ্ছে জঙ্গলের পথে । সেখানে ঘন সবুজের মাঝে এক চিলতে উঁচু নীচু রাস্তায় বুনো গন্ধের সঙ্গে মিশে থাকে এক আশ্চর্য্য মাদকতা ।echche gaon trek (ছবি : প্রিয়াঙ্কা বি)

ইচ্ছেগাঁও – লেপচা ভাষায় যার অর্থ সবচেয়ে উঁচুতে যে গ্রাম । এ গাঁও-এর উপর দিয়ে মাঝে মাঝেই নেমে আসে মেঘের হালকা পেঁজা পেঁজা তুলো । আর গাঢ় নিবিড়তায় খাওয়াস একের পর এক পাহাড়ী গল্প বুনে চলেন । ধীরে ধীরে আলো কমে আসে – আর খাওয়াস এসে দাঁড়ায় এক ছোট্ট টিলার মাথায় – যেখান থেকে সূর্যাস্তের দৃশ্য বড় মনোরম , বড় আদুরে মোলায়েম । খাওয়াস স্বপ্ন দেখে চলে সেখানে একদিন সে আর গ্রামের ছেলেরা মিলে গড়ে তুলবে সানসেট পয়েন্ট । echche gaon sunset point(ছবি : প্রিয়াঙ্কা বি)

গল্পচ্ছলে জানা গেল , ইচ্ছেগাঁও-এর চাষাবাদ সবকিছু অর্গানিক পদ্ধতিতে । সেখানে না আছে কোনও রাসায়নিক সারের প্রয়োগ , না কীটনাশকের ব্যবহার । পাহাড়ের গায়ে ধাপ কেটে কেটে সে এক বিশাল কর্মকান্ড । এই পদ্ধতিতে  ফলন ঘটিয়ে এই গ্রামগুলি এখন অনেকটাই স্বয়ংসম্পূর্ণ ।ক্ষেত থেকে তুলে আনা সেই টাটকা সব্জি দিয়ে খাওয়াস পরিবার সাজিয়ে দেয় অতিথিদের খাওয়ার টেবিল। অর্গানিক বিশালাকার মুলো গাজর ও অন্যান্য সব্জির আচারের বাহারে খাবার হয়ে ওঠে আরও সুস্বাদু । বাড়ীর মেয়েরা গুনগুন লেপচা গানে ভরিয়ে রাখে সন্ধ্যা – বাসর ।

অতিথিদের ঘর সংলগ্ন ব্যলকনি থেকেও দৃশ্যমান কাঞ্চনজঙ্ঘার অপরূপ সূর্যাস্তের গাঢ় সোনালি মনোহরণ রূপ বা সকালের শ্বেতশুভ্র রূপ ।echche gaon sunset (ছবি : প্রিয়াঙ্কা বি)

ছোট্ট সাজানো গোছানো গ্রামটিতে পায়ে হেঁটে ঘুরে বেড়ানোটাই এক দারুণ অভিজ্ঞতা । রংবেরঙের পাহাড়ী ফুলের সজ্জায় প্রতিটি বাড়ী সুশোভিত । Echche gaon Hill village(ছবি : প্রিয়াঙ্কা বি)

আর রাত নামলে , ঘন নিকষ কালোর অন্ধকার মেখে খাওয়াসদের ব্যলকনিতে বসে উপভোগ করুন আদিম নির্জনতা । গ্রাম ঘুমিয়ে পড়ে , শুধু জেগে থাকে বহুদূরের দার্জিলিং যাওয়া আসার পথের রাতজাগা তারারা – চলন্ত গাড়ীগুলোর হেডলাইটের আলো ।

আপনার মন চাইলে , খাওয়াসকে নিয়ে বেড়িয়ে পড়তে পারেন ছোট ছোট ট্রেক-এ । সে হতে পারে পূব পানে ‘সিলারি গাঁও’ অথবা আরও উঁচুতে পাইনের বন বা আর কোনও অজানা অচিন দেশ । খাওয়াস দেবে সেই স্বপ্নের সন্ধান । শুধু আপনার বলার অপেক্ষা ।Echche Gaon Hill beauty

(ছবি : প্রিয়াঙ্কা বি)


Contact Information for Home Stay & Package Tour at East Sikkim

Ichche Gaon

Khawas Family : 08670242128 / 8906926652

Rishikhola

Sebestian Pradhan : 09002774220

Zuluk

Labzang Bhutia family : 09733063463 / 08101827279 / 07407262795 / 09197201187


চা বাগানের দেশে

 

2 thoughts on “ইচ্ছে গাঁও – experience the Eco-organic tourism – Tuhina Paul

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *